ক্রিকেট

অজিত আগারকার প্রধান নির্বাচক হওয়ার সাথে সাথে ধোনির ক্যারিয়ার শেষ হবে

ভারতীয় দলের প্রধান নির্বাচক পদে থাকা এমএসকে প্রসাদ এর মেয়াদ প্রায় শেষ হতে চলেছে। এই পদে জায়গা পেতে আবেদন করেছেন অনেক প্রবীণ ভারতীয় ক্রিকেটাররা। যার মধ্যে রয়েছেন প্রাক্তন ভারতীয় বোলার অজিত আগারকার। তবে অজিত আগারকার যদি ভারতীয় দলের প্রধান নির্বাচক কমিটির সদস্য হন তাহলে সাথে সাথে মহেন্দ্র সিং ধোনির ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

Image result for Ajit Agarkar

একসময় ভারতীয় দলের প্রধান বোলারদের মধ্যে ছিলেন অজিত আগারকার। শেষের দিকে তিনি ব্যাট হাতেও যথেষ্ট অবদান রেখেছিলেন। কিন্তু মহেন্দ্র সিং ধোনি ভারতীয় দলের অধিনায়ক হওয়ার পরেই হঠাৎ করেই তার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায়। ২০০৭ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনি অধিনায়ক হন এবং একই বছরেই অজিত আগারকারও তার ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচটি খেলে ফেলেন।

এরপর, অজিত আগারকারকে দেখা যায় ধোনির বিরুদ্ধে নানাভাবে সমালোচনা করতে। যখনই তিনি সুযোগ পান তিনি ধোনির নামে কু মন্তব্য করেন। এখন যদি তিনি ভারতীয় দলের প্রধান নির্বাচক হন তাহলে মহেন্দ্র সিং ধোনিকে কোনও সুযোগ দিতে দেখা যাবে না। এছাড়াও আরও একটি বড় কারণ রয়েছে, যার ফলে ভারতীয় দলে মহেন্দ্র সিং ধোনির টিকে থাকা প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়বে।

শুধুমাত্র বিবাদের কারণেই আগরকর মহেন্দ্র সিং ধোনিকে সুযোগ দেবেন না, তা আসলে না। যার সবচেয়ে বড় কারণ হ’ল তার চোখে ঋষভ পান্তকে সেরা খেলোয়াড় হিসাবে বিবেচনা করা হয়। সম্প্রতি পান্থের সমর্থনে কথা বলার সময় তিনি বিরাট কোহলিকে লক্ষ্য করে বলেছিলেন যে পান্থের মতো খেলোয়াড় দলের পক্ষে এক্স ফ্যাক্টর হিসাবে প্রমাণিত হতে পারে।

Image result for MS Dhoni

তাকে (ঋষভ পান্ত) দলের বাইরে রাখা সিদ্ধান্ত পুরোটাই বড় ভুল। আপনি এত দিন কোনও খেলোয়াড়কে দলের বাইরে রাখতে পারেন না। অজিত আগারকার নির্বাচক কমিটির প্রধান হলেই ঋষভ পান্তকে তিনি একাদশে খেলার সুযোগ করে দেবেন। যেটা মহেন্দ্র সিং ধোনির পক্ষে দলে ফেরা আরো কঠিন হয়ে যাবে।

গত বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে হারের পর থেকে মহেন্দ্র সিং ধোনি ২২ গজ থেকে অনেক দূরে রয়েছেন। এমনকি তিনি ঘরোয়া ক্রিকেটও খেলেননি। যদিও তার ফেরার রাস্তা নির্ভর করছে সম্পূর্ণ আইপিএল এর উপর। সেখানে যদি খুব ভালো পারফরম্যান্স করতে পারে তাহলে আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তিনি ভারতীয় দলে সুযোগ পেতে পারেন বলে জানিয়েছেন ভারতের দলের প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী।