Connect with us

Health

মাত্র ৬০ সেকেন্ডেই দাঁত ব্যথা গায়েব! জেনে নিন কয়েকটি ঘরোয়া টোটকা

কমবেশি অনেকেই দাঁত ব্যথার মত অসহ্য যন্ত্রণার মুখোমুখি হয়েছেন। হাতের কাছে কয়েকটি ব্যথা নিরাময় উপাদান থাকা সত্ত্বেও অজান্তে আমরা দাঁত ব্যথায় কষ্ট পেতে থাকি। বিশেষ করে এটি রাত্রিবেলায় হয় বলে তেমন ওষুধপত্র থাকেনা বা অনেকসময় চিকিৎসকের কাছে যাওয়া সম্ভব হয়ে ওঠে না।  

তবে এই সমস্যায় কখনও পড়লে কয়েকটি ঘরোয়া টোটকার মাধ্যমেও দাঁত ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। চলুন সেই সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক:-

Tooth pain relief

১) লবণ জল: দাঁত ব্যথার উপশম খুবই ভালো কাজ করে লবণ মিশ্রিত জল। সামান্য উষ্ণ গরম জলে লবণ দিয়ে কুলকুচি করলে উপশম পাওয়া যায়। লবণ জল ইনফেকশন দূর করার সাথে সাথে মাড়ি ব্যথা এবং গলা ব্যথা কমাতেও খুবই ভালো কাজ করে।

২) রসুন: দাঁত যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন? এমন সময় কি করবেন ভাবতে পারছেন না! খুব শীঘ্রই এক কোয়া রসুন থেঁতো করে অল্প লবণের সাথে দাঁতের সাথে চেপে ধরুন। এমনকি এটি চিবিয়ে খেতে পারেন। ধীরে ধীরে যন্ত্রণা কমে আসবে।

৩) লবঙ্গ: দাঁত ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে লবঙ্গের জুড়ি মেলা ভার। কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েলের সঙ্গে লবঙ্গ থেঁতো করে পেস্টটা দাঁতে লাগান, দেখবেন কিছুক্ষণের মধ্যেই ব্যাথা কমে এসেছে।

লবঙ্গের যত গুণাগুণ

৪) লবণ ও গোলমরিচ: দাঁত ব্যথা উপশমে গোলমরিচ খুবই উপকারে আসে। এই সময় লবণ ও গোলমরিচ একসাথে মিশিয়ে কয়েক মিনিট দাঁতের সাথে চেপে ধরুন। কিছুক্ষণের মধ্যেই হাতেনাতে ফলাফল পেয়ে যাবেন।

৫) পেঁয়াজ: দাঁত ব্যথা উপশমে যে উপাদানটি সবথেকে কার্যকরী তা হলো পেঁয়াজ। এটির অ্যান্টিসেপটিক গুণ কোন যেকোনো ক্ষত বা ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে। দাঁত ব্যথা হলে পেঁয়াজের রস লাগান, দ্রুত উপশম পাওয়া যায়।

টিপস: নিয়মিত দুই বেলা খাবারের পরে ভালো করে ব্রাশ করলে দাঁতের গোড়ায় ময়লা জমতে পারে না এর ফলে দাঁত ভালো থাকে আর এই সমস্যায় পড়তে হয় না। এমনকি তুলনামূলকভাবে দাঁত উজ্জ্বল হয় যা সৌন্দর্যকে ফুটিয়ে তোলে।

Continue Reading
Click to comment

Trending ..

To Top