অন্যান্য

ভারতের মানুষরা হৈহট্টগোল করেও চীনের প্রোডাক্ট কিনবে, দাবি চীনা সংবাদমাধ্যম

সারা বিশ্বের মধ্যে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে দিয়ে মৃত্যুর খেলা খেলছে চীন। যার ফলে সারাবিশ্ব চীনের প্রতি তীব্র আক্রোশে ফেটে পড়েছে। এছাড়াও ভারত সীমান্তে চীনের সেনারা উত্তেজনা বাড়িয়েছে যা এখন প্রতিটি মিডিয়া হাউসের শিরোনামে রয়েছে। এই খবর পেয়ে রাশিয়ান মিডিয়া চীনের তীব্র নিন্দা করে এবং ভারতের পাশে দাঁড়ানোর ইঙ্গিতও দিয়েছে।

U.S., China Trade Blame for Coronavirus, Hampering Global Economy ...

চীনের সাথে বিশ্বের প্রতিটি দেশ সমস্ত রকম সম্পর্ক ছিন্ন করতে চালেছে আর সেখানকার বিদেশি সংস্থাগুলি অন্য দেশে স্থানান্তরিত হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। এরপরেও চীনের টনক নড়েনি কিন্তু যখন ভারতের কিছু মানুষ চিনা পণ্য বর্জনের দাবি করে তখন তাদের রাতের ঘুম উড়ে যায়।  

আপনাকে জানিয়ে রাখি, চীনের নিজস্ব কোন মিডিয়া হাউস নেই সেখানকার সংবাদপত্র থেকে শুরু করে টিভি চ্যানেল সব কিছুই তাদের সরকারের ইশারায় কাজ করে আর চীনের বৃহত্তম সংবাদপত্রের নাম হলো গ্লোবাল টাইমস আর এই মিডিয়া হাউসের একজন এডিটর কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য যার নাম হু কসিজিন।

এই গ্লোবাল টাইমসের এডিটর সরাসরিভাবে ভারতীয়দের উপর যে মন্তব্য করেছেন তা ভাইরাল হয়ে গিয়েছে এবং এর ফলে তাদের মানসিকতা দেখে বোঝা যায় যে তারা ভারতীয়দের কতটা বোকা ভাবে এবং নিচু চোখে দেখেন।

Global Times editor Hu Xijin speaks to CNN - CNN Video

তিনি জানিয়েছেন যে, “ভারতীয়রা যতই আমাদের পণ্য বয়কট করার নিয়ে কথা তুলুক না কেন সেটা কখনোই পারবে না। কারণ তারা খুবই নিকৃষ্ট মনের মানুষ। কিছুদিন থমথমে হলে আবার তারা চীনা পণ্য ক্রয় করতে শুরু করবে।”

এছাড়াও গ্লোবাল টাইমসের মাধ্যমে বলা হয়েছে, “ভারতীয়রা কখনোই পরিশ্রমী হয় না বরং হৈহট্টগোল করতে জানে।” এই বক্তব্য খুব দ্রুত ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যায় এবং ভারতীয়রা তীব্র ক্ষোভে চীনা পণ্য বয়কটের দাবি জানিয়েছেন। সম্প্রতি সোনাম ওয়াঙচুক চিনা অ্যাপ্লিকেশন টিকটক সহ সমস্ত সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যার বয়কটের দাবি করেছেন।  

error: Content is protected !!