ক্রিকেট

সরফরাজ আহমেদের চূড়ান্ত ভুলে আউট হয় ওই দলের একমাত্র টিকে থাকা ব্যাটসম্যান

এই ম্যাচটি সম্প্রতি কিছুদিন আগে কার যখন শ্রীলঙ্কা পাকিস্তান কে ৩-০ এ পরাজিত করেছিল টি-টোয়েন্টিতে। এই মুহূর্তটি দেখে হাসির খোরাক পড়ে যায় নেটিজেনদের মধ্যে।। পাকিস্তান সফরে শ্রীলঙ্কা এটাই ছিল প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচের পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের অত্যন্ত ভুলে এবং চরম হাস্যকর পরিস্থিতির মধ্যে আউট হলেন অলরাউন্ডার ইফতিখার আহমেদ। 

Running between the wickets - Pakistani style

এখানে অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ প্রথমে টসে জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন, যদিও এই সিদ্ধান্তটি সকলে ভালো চোখে দেখেনি। শ্রীলঙ্কা প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ওভারে ১৬৫ রান তোলে ৫ উইকেট হারিয়ে। শ্রীলংকার ওপেনার দানুশকা গুণাথিলাকার ৩৮ বলে ৫৭ রানের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন। দুই ব্যাটসম্যান এরমধ্যে তাল ঠিক না থাকা পাকিস্তানের একটা বৈশিষ্ট্য। বিশ্ব এ যতবারই এরকম আউট হয়েছে তা অধিকাংশ পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানদের নামেই হাস্যকর আউটটি লেখা আছে।

১২ তম ওভারে বল করছিলেন ইসুরু উদানা। ওই ওভারের তৃতীয় বলে ইফতিখার আহমেদ ড্রাইভ করে কভারের দিকে। এখানে ফিল্ডিং করছিলেন দাসুন শানাকার। অসাধারণ ফিল্ডিং করে সাথে সাথে ঐ বোলারের হাতে বল ছুড়ে দেয় এবং রান আউট হয়। কিন্তু এই আউটিটি ছিল অত্যন্ত হাস্যকর। সরফরাজ আহমেদ না তাকিয়েই দৌড়াতে শুরু করেছিল। যখন মাঝ পিচ পর্যন্ত ছুটে আসে, একমাত্র টিকে থাকা ইফতিখার আহমেদ, তারপর তিনি নিজের মন বদলে পুনরায় নিজের ক্রিজের দিকে ছুটতে থাকে। ততক্ষণে অপরপ্রান্তে রান আউট করেন ইসরু উদানা।

Image result for Sarfraz Ahmed

এই আউট নিয়ে বিতর্কে পড়েছিল আম্পায়াররা তাই থার্ড আম্পায়ারের সাহায্য নিয়ে পরিষ্কার বসে যাই ম্যাচের নিয়ম অনুযায়ী, ওই ড্রাইভ মারা ব্যাটসম্যান আউট কারণ তিনি মাঝে পিচ অবধি বেরিয়ে এসেছিলেন বলে। অবশেষে তাকে প্যাভিলিয়ন এর দিকে রওনা দিতে হয়।

ইফতিখার একমাত্র সর্বোচ্চ স্কোর করেছিলেন। দুটি বাউন্ডারি সাহায্যে ২৪ বলে ২৫ রান করে আউট হন, সরফরাজ আহমেদের ভুলে। এরপরের ওভারেই বোল্ড আউট হয়ে যান সরফরাজ আহমেদ নিজেই। শেষ পর্যন্ত পাকিস্তান ১৪.৪ ওভারে অল আউট হয়ে যায়।

দেখে নিন সেই হাস্যকর ভিডিওটি :-

error: Content is protected !!