Connect with us

এবার বাড়িতে বসেই আপনার ভোটার আইডি কার্ডের ছবি বদলে ফেলুন

News

এবার বাড়িতে বসেই আপনার ভোটার আইডি কার্ডের ছবি বদলে ফেলুন

ভোট দিতে গেলে কমসেকম ১৮ বছর বয়স লাগে তবে তার ভোটার আইডি কার্ড তৈরি হয়। তবে কখনো কখনো দেখা গিয়েছে ভোটার আইডি কার্ডের নাম ঠিকানা ভুল থাকে, যার ফলে তাকে চরম বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। কিন্তু জানা গিয়েছে, এবার শুধু আপনি ভোটের কার্ডে আপনার নাম ও ঠিকানা পরিবর্তন ছাড়াও আপনার বাড়িতে বসে ছবিও খুব সহজে বদলে ফেলতে পারবেন, ইন্টারনেটের সাহায্যে। তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক সেই সহজ উপায়টি।

আপনার ভোটার আইডি কার্ডে আপনার ঠিকানা বদলাতে চাইলে প্রথমে ভোটার কার্ড সংক্রান্ত অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে (www.nvsp.in), এরপর এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর ৮ নম্বর ফর্ম এ ক্লিক করতে হবে, এখানে আপনি দেখতে পাবেন আপনার ঠিকানা পরিবর্তন কিংবা সংশোধন করার জন্য একটা বিকল্প দেওয়া রয়েছে।

এই নিবন্ধনে আপনাকে সমস্ত যাবতীয় তথ্য গুলি সঠিকভাবে প্রমাণ দিতে হবে। এবং একসাথে যেকোনো একটি অফিশিয়াল ডকুমেন্ট যেমন আধার কার্ড ব্যাঙ্ক পাসবুক কিংবা ড্রাইভিং লাইসেন্স অ্যাটাচ করতে হবে। ফরমটি সম্পূর্ণভাবে পূরণ করার পর আপনার নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরটিতে একটি ওটিপি আসবে, সেই ওটিপি নাম্বার দিয়ে কনফার্ম করতে হবে। এরপর সেটি সরকার দ্বারা যাচাইয়ের পরে ভোটার আইডি টি আপনার নতুন ঠিকানায় প্রেরিত হবে।

ঠিক একইভাবে আপনার ভোটার আইডিতে ছবি বদল করতে চাইলে ওই একই অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে (www.nvsp.in)। এখানেও ৮ নম্বর ফর্ম এ ক্লিক করার পর ফটো পরিবর্তন করার জন্য অপশনটি বেছে নেবেন, তারপর আপনি যে ছবিটি ভোটার আইডিতে দিতে চাইবেন সেটি সিলেক্ট করবেন। এখানে আপনাকে ভোটার কাঠের যাবতীয় তথ্য গুলির পাশাপাশি ব্যক্তিগত কিছু প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হবে।

এছাড়াও আপনার ইমেইল ফোন নম্বর ইত্যাদি গুলিও দিতে হবে। এই ফরমটি পূরণ করার পর আপনার নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরটিতে একটি ওটিপি আসবে, সেই ওটিপি নাম্বার দিয়ে কনফার্ম করতে হবে। আপনি এক মাসের মধ্যে নতুন ভোটার আইডি কার্ড পেয়ে যাবেন যেখানে আপনার নতুন ছবি দেওয়া থাকবে। এই প্রক্রিয়াটি নির্বাচন কমিশনার ১লা সেপ্টেম্বর থেকে চালু করেছে আগামী ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে।

Continue Reading
Click to comment

Trending ..

To Top