ক্রিকেট

ধোনিকে নিয়ে ভুয়া তথ্য রটানোর জন্য তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করলেন তার স্ত্রী সাক্ষী

করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বের জনসংখ্যার এক-তৃতীয়াংশ লকডাউনের অধীনে। এই কঠিন পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বড় সমস্যাটি হচ্ছে দরিদ্র শ্রমিকদের। সরকার তাদের জন্য বেশ কয়েকটি ব্যবস্থা করেছে। এখন সেলিব্রিটিরাও তাদের এবং করোনাভাইরাসকে মোকাবিলা করার সহায়তা করতে এগিয়ে আসছেন।

ঠিক এমন পরিস্থিতিতে কোন এক মিডিয়া সংস্থা দাবি করেছে যে মহেন্দ্র সিং ধোনি পুনের ১০০জন গরীব মানুষের জন্য টানা ২১ দিনের খাবারের বন্দোবস্ত করে এক লক্ষ টাকা দান করেছেন। কিন্তু অনেকেই তা বাঁকা চোখে দেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় ধোনিকে নিয়ে ট্রল করা শুরু করেন।

IPL 2018 MI vs CSK: Good to see Dwayne Bravo take responsibility ...

এই খবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুতগতিতে ভাইরাল হয়ে যায়। এর পরেই মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নিয়ে সকলেই চাঁচাছোলা ভাষায় প্রবল সমালোচনা শুরু করে। তাদের কথা অনুযায়ী তিনি ৮০০ কোটি টাকার মালিক হয়ে মাত্র এক লক্ষ টাকা দান করেছেন? কিন্তু এই খবরটি সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি করেন তাঁর স্ত্রী সাক্ষী।

ব্যাপকভাবে ধোনিকে নিয়ে যখন সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনরা ট্রল করতে শুরু করেন তখন সাক্ষী নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সমস্ত মিডিয়া হাউজ এবং সেই সকল মানুষদের ওপর তিনি ধিক্কার জানিয়েছেন।

সাক্ষী ধোনি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে লেখেন, “আমি সকল মিডিয়া হাউসকে অনুরোধ করছি যে এমন সংবেদনশীল পরিস্থিতিতে মিথ্যা সংবাদ প্রচার বন্ধ করুন! লজ্জা করে না আপনাদের! আমি অবাক হচ্ছি যে দায়িত্বপূর্ণ সাংবাদিকতা কোথায় উধাও হয়ে গেলো”।

আপনাকে জানিয়ে রাখি, মহেন্দ্র সিং ধোনি যদি কোন কিছু দান করে থাকেন তবুও তিনি তা কখনো প্রচারে আসতে চান না, ভারতবর্ষের সর্বোচ্চ করদাতা দের মধ্যে তিনি রয়েছেন। অন্যদিকে ভারতের ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি ৫০ লাখ টাকার চাল অনুদানের ঘোষণা করেছেন। শচীন টেন্ডুলকারও ৫০ লাখ টাকার অনুদান ঘোষণা করেছেন।

বিশ্বের প্রায় ১৯৫ টি দেশ করোনভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এতে ৫ লক্ষাধিক মানুষ আক্রান্ত। ২৪ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছে। এক লক্ষ ২৫ হাজারেরও বেশি রোগী সুস্থ হয়েছেন।

error: Content is protected !!