লাইফস্টাইল

বাড়িতে AC নেই? জেনে নিন ঘরের তাপমাত্রাকে কমানোর কয়েকটি সহজ উপায়

লকডাউনে গৃহবন্দি জীবন অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। তার ওপরে তীব্র গরম। অথচ যাদের বাড়িতে এসি রয়েছে তাদের কোন চিন্তাই নেই। তবে এই গরমের হাত থেকে বাঁচতে আপনি প্রাকৃতিক উপায়ে আপনার ঘরকে ঠান্ডা রাখতে পারেন। 

এমন পরিস্থিতিতে বিদ্যুতের বিল বাঁচিয়ে মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই ঘরের অস্বাভাবিক গরমকে কমিয়ে ফেলুন। জেনে নিন এবার উপায় গুলি :-

10 Cara Mudah & Jimat Nak Sejukkan Rumah Tanpa Pasang Air-cond - MASKULIN

এই পদ্ধতিতে ঘরকে ঠাণ্ডা রাখতে প্রয়োজন একটি টেবিল ফ্যান। ফ্যানটি এমন জায়গায় রাখুন যেন তার পেছনটা জানলার দিকে থাকে। এমন অবস্থায় ফ্যান এর সামনে একবাটি বরফে রেখে দিন।

বরফের গায়ে ফ্যানের হাওয়া লাগছে কিনা সেই দিকে নজর দিতে হবে এবং এই উপায়ে কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘর ঠান্ডা হয়ে উঠবে।

বাড়িতে যদি বরফ না থাকে, তাহলে ঘরের যেদিকে রোদ ঢোকে সেইদিকে কোনও মোটা কাপড় ভিজিয়ে টাঙিয়ে দিন। 

এছাড়া একটি বড় জলভর্তি বালতি নিয়ে ঘরের কোনায় রেখে দিয়ে ফ্যান চালিয়ে দিন। এতে ঘরের তাপমাত্রা ২ থেকে ৩° সহজেই কমে আসবে।

A bucket full of water by Lightningball on DeviantArt

অত্যধিক গরমে গাঢ় রঙের সুতির পর্দা ব্যবহার করুন। খুব গরম হলে পর্দায় ঠান্ডা জল স্প্রে করে দিতে পারেন। এরপর ফ্যান চালিয়ে দিলে তাপমাত্রা অনেকটাই কমে আসবে।

ঘর ঠান্ডা রাখার জন্য কোন রকম ইলেকট্রিক জিনিসপত্র চালু না রাখাই ভালো। এতে ঘরের উষ্ণতায় অনেকটাই বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

প্রাকৃতিক উপায়ে ঘরের গরম কমাতে হলে এমন কিছু গাছ রাখুন যেগুলি কার্বন-ডাই-অক্সাইড ও কার্বন মনোক্সাইড গ্যাসকে শোষণ করে। এতে ঘরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক থাকবে।

How to grow and care for aloe vera plants - iproperty.com.my

তবে ঘরের তাপমাত্রা কমাতে সবচেয়ে বেশি কার্যকর হলো একটি টেবিল ফ্যান। দুপুরের ভ্যাপসা গরম থেকে বাঁচতে টেবিল ফ্যানটি জানলার কাছে রাখুন। এটি বাইরে ঠান্ডা হাওয়াকে ভিতরে নিয়ে আসবে এবং ঘরের অসহনীয় গরম দূর হবে।

খেয়াল রাখতে হবে দুপুরের পর কোনোভাবেই যেন ঘরের মধ্যে রোদ্দুর প্রবেশ করতে না পারে। এরপর সন্ধ্যায় মৃদু বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা করুন। এতে গরম বাতাস বেরিয়ে যায় এবং ঘর আরামদায়ক হয়।

error: Content is protected !!