ক্রিকেট

শচীনকে চ্যালেঞ্জ দিয়েছিল মহিলা ক্রিকেটার এলিস পেরি, প্রথম বলেই হাঁকালেন চার

ক্রিকেট ঈশ্বর শচীন টেন্ডুলকার প্রায় ৭ বছর পরে ব্যাট হাতে নেমেছিলেন। অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে বুশফায়ার রিলিফ ম্যাচের সময় টেন্ডুলকারকে সেই একই পুরানো স্টাইলে শট খেলতে দেখা গেছে। পন্টিং একাদশ এবং গিলক্রিস্ট একাদশ ম্যাচের মধ্যকার বিরতিতে শচীন অস্ট্রেলিয়ার মহিলা বোলার অ্যালিস পেরির বিপক্ষে একটি ওভার ব্যাট করেন। এটি ছিল শচীন এবং পেরির মধ্যে একটি ওভার চ্যালেঞ্জ ম্যাচ। এতে টেন্ডুলকার ছয় রান করেন।

Image

আসলে, এই ম্যাচের আগের দিন, এলিস পেরি সোশ্যাল মিডিয়ায় শচীন টেন্ডুলকারের সামনে বোলিং এর চ্যালেঞ্জ রেখেছিলেন। শচীন পেরির চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেন এবং আজ এক ওভারে ব্যাট করতে নামেন। যা দেখে সকলেই যেনো সেই সোনালী দিনে হারিয়ে গিয়েছিল, পুনরায় সচিনকে ব্যাট করতে দেখে।

অ্যালিস পেরি লিখেছিলেন, ‘শচীন, আপনি কি আমাকে এক ওভারের মুখোমুখি করতে পারেন?’ তেন্ডুলকর তত্ক্ষণাত জবাব দিয়েছিলেন, “হ্যাঁ, আমি একেবারেই করব, যদিও কাঁধে আঘাতের কারণে চিকিত্সক এমন কিছু করতে নিষেধ করেছেন, তবুও আমি মাঠে এক ওভার খেলব।” আমি আশা করি আমরা এই মহৎ উদ্দেশ্যে বুশফায়ারের ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য পর্যাপ্ত অর্থ জোগাড় করব।

Image

শচীন ম্যাচের ১০ ওভারের সময়ে ব্যাট করতে নামেন, প্যারির ইচ্ছা পূরণ এর জন্য। প্যারির প্রথম বলেই শচীন একটি চার মারেন। তিনি মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ১৩ নভেম্বর ২০১৩ সালে ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছিলেন। প্রায় ৭ বছর পর মাঠে ফিরলেন শচীন, একেবারে পুরনো ঢঙে।

শচীন টেন্ডুলকারের ব্যাটিং দেখে ভক্তরা তাদের পুরানো দিনের কথা স্মরণ করে টুইটারে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। শচীনকে ব্যাটিং করতে দেখে তার সকল ভক্তরা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

দেখুন ভিডিও:

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে খেলা বুশফায়ার রিলিফ ম্যাচে গিলক্রিস্ট একাদশ পন্টিং ইলেভেনের কাছে শেষ বলে এক রানে পরাজিত হয়েছে। প্রথম খেলায় পন্টিং একাদশ ১০ ওভারে ৫ উইকেটে ১০৪ রান করে। জবাবে গিলক্রিস্ট একাদশ ১০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১০৩ রান তোলে এবং ম্যাচটি ১ রানে হেরে যায়।

error: Content is protected !!