Connect with us

গত কুড়ি বছরে বিশ্বকে ৫ বার কাঁদিয়েছে চীন, আর নয়! কড়া হুঁশিয়ারি আমেরিকার

News

গত কুড়ি বছরে বিশ্বকে ৫ বার কাঁদিয়েছে চীন, আর নয়! কড়া হুঁশিয়ারি আমেরিকার

এক দুবার নয়, গত ২০ বছরে সারা বিশ্বকে পাঁচবার কাঁদিয়েছে করোনা ভাইরাস সৃষ্টিকারী চীন। আর কোনভাবেই সহ্য করা যাবে না, শীঘ্রই এর ব্যবস্থা নিতে হবে। সারাবিশ্ব এখন যে মহামারিতে জর্জরিত হয়ে রয়েছে তা কেবল চীনের জন্য। এই ভাবেই কড়া ভাষায় বললেন আমেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ও’ব্রায়েন।

Coronavirus spread leads Google to temporarily close all China ...

তিনি সরাসরি জানিয়েছেন, সারাবিশ্বে যে আড়াই লাখেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে তার দায় কেবল চীনের। চীনের উহান প্রদেশের গবেষণাগার থেকে বা অন্য কোথা থেকে, যেখান থেকেই হোক না কেন এই মারন ভাইরাসের সমস্ত দায়ভার চীনের।

গত মঙ্গলবার থেকে হোয়াইট হাউস থেকে, তীব্র ভাষায় কটাক্ষ করে রবার্ট ও’ব্রায়েন বলেন, “চীনের বারবার এইভাবে আঘাত আমরা মেনে নেব না। সার্স, অ্যাভিয়ান ফ্লু, সোয়াইন ফ্লু এখন করোনাভাইরাস, প্রত্যেকবার গোটা বিশ্বকে মহামারীর কবলে ফেলেছে চিন।”

পঞ্চম আঘাতের কথা না বললেও উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ খাড়া করে চিনকে কড়া ভাষায় হুমকি দিয়েছেন মার্কিন উপদেষ্টা। আমেরিকা চীনে একদল চিকিৎসক পাঠিয়ে এই ভাইরাসের উৎস খোঁজার কথা বললেও সে বিষয়ে একেবারেই নারাজ চীন সরকার জিনপিং। কিন্তু এই নিয়ে পাঁচবার সারা বিশ্বকে কাঁদতে হয়েছে শুধুমাত্র চীনের জন্য।

Who is Robert O'Brien, Trump's national security adviser pick ...

তাই ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে রবার্ট ও’ব্রায়েন জানিয়েছেন যে, তারা আর কখনোই চাইনা যে আগামী দিনে চিন থেকে অন্য কোন ভাইরাস আসুক। প্রয়োজন হলে চীনকে সবদিক থেকে সাহায্য করতে প্রস্তুত। এদিকে ও’ব্রায়েন জানিয়েছেন যে করোনা ভাইরাসের উপযুক্ত প্রমাণ সংগ্রহ করার কাজ দ্রুতগতিতে চলছে।

জানিয়ে রাখি, এই করোনাভাইরাসে জর্জরিত হয়ে ইতিমধ্যেই সারাবিশ্বে প্রাণ হারিয়েছেন লক্ষ লক্ষ মানুষ। ভারতবর্ষে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ১ লক্ষ ৫২ হাজার। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৪৩৩৭ হাজার নাগরিকের।

Continue Reading
Click to comment

Trending ..

To Top