Connect with us

অজানা তথ্য

প্রতি ১০০ বছর অন্তর পৃথিবীতে ভয়াবহ মহামারী ফিরে আসে কেন

সারাবিশ্ব নাজেহাল অবস্থা করোনা ভাইরাসের প্রকোপে। তাই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অর্থাৎ ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (WHO) এই ভাইরাসকে মহামারী থেকেও ভয়াবহ বলে ব্যাখ্যা করেছেন। প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা এবং এই রোগে আক্রান্ত রোগী। মৃত্যু হয়েছে প্রায় লক্ষ লক্ষ মানুষের।

Image result for terrible epidemic

এই মহামারী পৃথিবীতে প্রথম ঘটনা নয়। মনুষ্য জাতি এর আগেও ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছে। প্রতিবারই মহামারীর কবলে পড়ে বহু মানুষ প্রাণ হারান। তবে আশ্চর্যের বিষয় হলো যে, প্রত্যেক শতাব্দীর ঠিক ২০ সালেই কেন ভয়াবহ মহামারী ফিরে আসে?

আজ থেকে ঠিক ১০০ বছর আগে, ১৯২০ সালে সারা বিশ্বকে হানা দিয়েছিল ‘স্প্যানিস ফ্লু’, যার ফলে মৃত্যু হয় প্রায় ২ কোটি মানুষের। আর এই মারণ রোগে আক্রান্ত হয়েছিল সারা বিশ্বের ৫০ কোটি মানুষ। এই বিদেশী রোগের কারণে সারা ভারতে ১.৪ কোটি মানুষ মারা গিয়েছিল।

এই ঘটনাটির আরো ১০০ বছর আগে, অর্থাৎ ১৮২০ সালে সারাবিশ্বে মহামারী আকার ধারণ করে কলেরা। এই রোগে সাধারণত সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছিল যারা আর্থিকভাবে দুর্বল ছিলেন। তৎকালীন এক ভয়াবহ বন্যার পরেই জলবাহিত পেটের অসুখে কলেরা রোগে আক্রান্ত হয়ে হাজার হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছিলেন।

Image result for 1820 cholera

১৮২০ সালের ১০০ বছর আগে, অর্থাৎ ১৭২০ সালে ফ্রান্সে প্লেগ রোগের মহামারী ছড়িয়ে ছিল। সেই সময় একটানা দুই বছর এই রোগের স্থায়ী হয়, ফ্রান্সের যে দুটি শহর থেকে এই রোগের উৎপত্তি হয়েছিল সেখানকার ৫০ হাজার মানুষের জীবন কেড়ে নেয় এবং সারা বিশ্বে প্রায় ১০ লক্ষ মানুষ মৃত্যুবরণ করে এই মহামারিতে।

বিজ্ঞানীরা দিন-রাত কঠোর পরিশ্রম করেও করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে সক্ষম হতে পারেনি, এখন সতর্ক অবলম্বন ছাড়া কোন উপায় নেই। হয়ত আধুনিক চিকিত্সা বিজ্ঞানের সহায়তায় করোনাভাইরাসকে দূর করা যাবে। তবে ১০০ বছর পর পর কোনও না কোনও মহামারীর ফিরে আসছে। এর পেছনে কোনও কারণ আছে কি? নাকি পুরোটাই কি কাকতালীয় ঘটনাচক্র! তা এখনো কেউ জানে না।

Continue Reading

সর্বাধিক জনপ্রিয়

To Top