অজানা তথ্য

বাজারে বিভিন্ন ফলের গায়ে স্টিকার লাগানো থাকে কেন

আপনি বাজারে গেলে কমবেশি ফলের উপরে একটি স্টিকার দেখতে পাবেন। বিশেষ করে আপেলের মধ্যে এই স্টিকারটি দেখা যায়। তবে গ্রাহকরা মনে করেন এই স্টিকার দেওয়া ফলটি খুবই ভালো এবং গুণগতমানের। এইজন্য চিকিৎসকরা বলে থাকেন নিয়মিত ফল খাওয়া শরীরের পক্ষে খুবই উপকার।

যে সকল গ্রাহকরা স্টিকার দেখে ফল কিনতে আগ্রহী হন তাদের জানিয়ে রাখি এগুলি বিদেশি ফল যা খুবই উন্নত মানের এবং তার গুণগতমান অনেক ভালো। তবে দেশের ফলগুলিতে স্টিকার দেওয়া হয় না, কারণ এই ফলগুলির খুঁত না বোঝানোর জন্য বা ভালো প্রমাণ করার জন্য।

Image

তবে স্টিকার দেওয়া হলে খুবই দামি বলে চালিয়ে দেন বিক্রেতারা। আর তাই গ্রাহকরা না জেনেই ত্রুটিপূর্ণ ফল কিনে থাকেন। সম্প্রতির ফুড সেফটি এন্ড স্ট্যান্ডার্ড অথরিটি অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ফলে স্টিকার ব্যবহার করা হয় কারণ গ্রাহকরা যাতে দাম ও গুণগত মান সম্পর্কে জানতে পারে।

কিন্তু ভারতবর্ষে এমন কোন নিয়ম নেই। সাধারণ ফলের ওপর স্টিকার বসিয়ে বিক্রেতাদের বেশি দামে কিনে নেওয়ার প্রবণতা থাকে গ্রাহকদের কাছ থেকে। এমনকি এই স্টিকারগুলোতে যে আঠা ব্যবহার করা হয় তা শরীরের জন্য একেবারেই স্বাস্থ্যকর নয়, কারণ আঠাতে ব্যবহৃত রাসায়নিক পদার্থটি শরীরের জন্য ক্ষতিকারক।

এবার আসা যাক আসল কথায়, যদি কোনও ফলের ওপরে চার সংখ্যার কোড থাকে তাহলে ধরে নিতে হবে এটি উৎপাদনের সময় সাধারণ সার ও কীটনাশক ব্যবহার করা হয়েছে। এবার যদি কোড সংখ্যা পাঁচ অঙ্কের হয় এবং তার প্রথম সংখ্যা ৮ থাকে তাহলে ধরে নিতে হবে এই ফলটি জিনগতভাবে ফলন হয়েছে। অনুরূপভাবে পাঁচ অঙ্কের কোডে যদি প্রথম সংখ্যা ৯ দিয়ে শুরু হয় তাহলে ফলটি সম্পূর্ণ জৈবিকভাবে পাকানো হয়েছে।

error: Content is protected !!