অন্যান্য

বিশ্বের সবচেয়ে পাঁচটি সুখী দেশ; যেখানে দুর্নীতি ও অপরাধ নেই বললেই চলে

২০২২ সালে ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট ১০ বছর পূর্ণ করেছে। এই প্রতিবেদনে বিশ্বের সব দেশকে তাদের সুখের ভিত্তিতে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। প্রতিবেদনটি তিনটি প্রধান কারণের উপর সুখ পরিমাপ করে, জীবনের মূল্যায়ন, ইতিবাচক আবেগ এবং নেতিবাচক আবেগ। ফিনল্যান্ড আবারও বিশ্বের সবচেয়ে সুখী দেশ নির্বাচিত হয়েছে। এবার জেনে নিন এই তালিকার শীর্ষ ৫টি সুখী দেশগুলির সম্পর্কে।

১) ফিনল্যান্ড:

Image

ফিনল্যান্ড দেশটি টানা পঞ্চম বছরের জন্য সবচেয়ে সুখী দেশের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে। যদিও COVID-19 মহামারীর সময় কিছুটা অর্থনৈতিক মন্দার মধ্য দিয়ে গিয়েছিল, তবে জনগণের সুখ কেড়ে নেয়নি। প্রায় ৫.৫ মিলিয়ন বাসিন্দা এবং ফিনল্যান্ড সরকারের ইতিবাচক সিদ্ধান্ত থেকে বিশ্বের অনুপ্রেরণা নেওয়া উচিত। অসংখ্য প্রাচীন হ্রদ, দ্বীপ এবং বন দ্বারা বেষ্টিত, ফিনল্যান্ড শীতকালে আরও সুন্দর হয়ে ওঠে।

২) ডেনমার্ক:

Image

এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ডেনমার্ক, যা দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বের সবচেয়ে সুখী দেশের তালিকায় শীর্ষ দেশগুলোর একটি। জনগণের আনন্দের পেছনের কিছু বড় কারণ হলো স্থিতিশীল সরকারের বিনামূল্যে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থা। দেশটি কিছু বিখ্যাত সমুদ্র সৈকত, নীল হ্রদ এবং সুন্দর দ্বীপে ভরা।

৩) আইসল্যান্ড:

Image

বিশ্বের সুখী দেশের তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে আইসল্যান্ড। দেশটিতে প্রায় ৩.৬৬ লক্ষ মানুষের বাস রয়েছে এবং জনসংখ্যার অধিকাংশই রাজধানী রেইকিয়াভিকে বাস করে। দেশবাসীর সুখের কারণগুলো হলো জীবনযাত্রার মান উচ্চ, বিনামূল্যে শিক্ষা, নিম্ন বেকারত্ব এবং অপরাধের মাত্রা নেই বললেই চলে। এছাড়া এই দেশে কোনও সেনাবাহিনী নেই।  

৪) সুইজারল্যান্ড:

Image

বিশ্বের সবচেয়ে সুখী দেশের মধ্যে শীর্ষ পাঁচের মধ্যে নিজেদের অবস্থান ধরে রেখেছে সুইজারল্যান্ড। দেশটির মাথাপিছু উচ্চ জিডিপি এবং কম দুর্নীতির হার রয়েছে যা নাগরিকদের সুখী করে রেখেছে। সুইস ব্যাংক, ডিজাইনার ঘড়ি এবং চকলেটের দেশ সুইজারল্যান্ড।

৫) নেদারল্যান্ড:

Image

নেদারল্যান্ডস সবচেয়ে সুখী দেশের তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছে৷ এখানে বসবাসকারী মানুষের জীবনে একটি ভাল ভারসাম্য বজায় রাখা হয় ও উচ্চ মানের শিক্ষা পাওয়া যায় এবং অপরাধের হারও খুব কম। তা ছাড়া এই দেশটিরও রয়েছে চমকপ্রদ ইতিহাস। 

error: Content is protected !!