Connect with us

লাইফস্টাইল

১৮ বছর হওয়া সত্ত্বেও যারা করোনা ভ্যাকসিন নিতে পারবেন না; জেনে নিন কারণটা

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে গোটা দেশ এখন জর্জরিত। এই সংকটময় পরিস্থিতির মোকাবেলা করতে ভারত সরকার ঘোষণা করেছে ১লা মে থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সমস্ত মানুষের টিকাকরণের ব্যবস্থা করা হবে। তবে এই ভ্যাকসিনটা নিয়ে কিছু মানুষের সন্দেহ রয়েছে। কারণ এই টিকা করনের পরে অনেকেরই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে, এমনকি কিছু লোক মারাও গেছে।  

আজকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৮ বছর হওয়া সত্ত্বেও যাদের এই টিকা নেওয়া উচিত না। তবে তারা কারা? সেই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো:-

The Top 5 COVID-19 Vaccine Candidates Explained

➡️ ভ্যাকসিন ডোজ আলাদা নেওয়া যাবে না:

এই মুহূর্তে ভারতে দুটি ভ্যাকসিনের ব্যবহার করা হচ্ছে — একটি ভারত বায়োটেক এর কোভাক্সিন এবং অন্যটি সিরাম ইনস্টিটিউটের কোভিশিল্ড। ভারত স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। বলা হয়েছে, দুটি আলাদা আলাদা ভ্যাকসিন নেওয়া যাবে না। প্রথম এবং দ্বিতীয় ডোজে একই ভ্যাকসিন নিতে – তবে সেটা কোভাক্সিন হোক বা কোভিশিল্ড।

➡️ কাদের ভ্যাকসিন দেওয়া উচিত নয়?

১) ১৮ বছরের কম বয়সীদের এই টিকা গ্রহণ করা উচিত নয়।

২) গর্ভবতী মহিলা অথবা যেসব মহিলারা শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ান তাদের এই ভ্যাকসিন গ্রহণ করা উচিত নয়। কারণ এই ভ্যাকসিন তাদের ওপর কী প্রভাব ফেলতে পারে সেই সম্পর্কে কোনো পরিষ্কার তথ্য পাওয়া যায় নি।

Coronavirus vaccine: Can't get your second COVID shot on time? Here's what experts want you to know | The Times of India

৩) কোন ব্যক্তির যদি প্রাথমিক ট্রায়াল ভ্যাকসিন নেওয়ার কারণে এলার্জি হয় অর্থাৎ প্রথম ডোজ নেওয়ার পর যদি এই ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায় তবে তাদের ভ্যাকসিন না নেওয়াই উচিত।

৪) যে সকল ব্যক্তিরা করোনাই আক্রান্ত হয়েছিলেন বা যাদের শরীরে এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ পাওয়া গেছে তাদের সম্পূর্ণরূপে সুস্থ হওয়ার প্রায় ৪ থেকে ৮ সপ্তাহ পর ভ্যাকসিন গ্রহন করা উচিত।

৫) কোন ব্যক্তির জ্বর, রক্তক্ষরণ ব্যাধি বা রক্ত সম্পর্কিত কোন রোগ অথবা রক্তাল্পতার কারণে কোন ব্যক্তি যদি মেডিসিন গ্রহণ করেন তবে তারও করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণ করা উচিত নয়। 

Coronavirus vaccine status, COVID-19 vaccine latest news update: From Moderna's successful stage 1 trials to China's new "safe" vaccine, everything you should know about COVID-19 vaccine status

৬) করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া কোনো রোগী যদি প্লাজমা থেরাপি বা অ্যান্টিবডি দ্বারা চিকিতসা করেছেন তাদেরও ৪ থেকে ৮ সপ্তাহ পর ভ্যাকসিন নেওয়া উচিত।

৭) যাদের লো প্লেটলেট রোগ আছে বা যাদের রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা খুবই দুর্বল এবং এর জন্য ওষুধ খাচ্ছেন তাদেরও এই মুহূর্তে করোনার টিকা গ্রহণ করা উচিত নয়।

➡️ করোনা ভ্যাকসিনের সাধারণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া:

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিচ্ছেন কোন টিকা নেওয়ার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। আপনার যদি জ্বর, এলার্জি বা কোন ধরনের গুরুতর অসুস্থতা থাকে তবে এই মুহূর্তে ভ্যাকসিনটি নেওয়া উচিত কিনা সে বিষয়ে ডাক্তারের সাথে কথা বলা উচিত। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর ইঞ্জেকশনের কারণে ব্যথা, হালকা জ্বর, শরীর ব্যথা, মাথাব্যথা, ক্লান্তির মতো নানান পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া গুলি দেখা যেতে পারে। 

Continue Reading

সর্বাধিক জনপ্রিয়

To Top