ক্রিকেট

আইপিএলের পাওয়ার প্লে-তে সর্বনিম্ন স্কোর করেছে এই তিনটি দল; লজ্জার রেকর্ড ২০২২ সালে

আইপিএল খেলার শুরুতেই ব্যাটসম্যানেরা চার ছক্কা হাঁকিয়ে রানের গতি বাড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। আসলে পাওয়ার প্লেতে মাত্র দু’জন ফিল্ডার বাউন্ডারি লাইনের ধরে থাকে তাই ওপেনাররা সুযোগটি কাজে লাগিয়ে দলকে একটি ভালো শুরু দিতে চান। আবার কখনো কখনো বোলিং দলও পাওয়ার প্লেতে উইকেট নিয়ে রানের গতি কমিয়ে দেয়। এই প্রতিবেদনে এমন তিনটি দলের কথা বলা হয়েছে যাদের আইপিএলের ইতিহাসে পাওয়ার প্লে-তে সর্বনিম্ন স্কোর রয়েছে। এবার দেখে নেওয়া যাক:

৩) চেন্নাই সুপার কিংস: ১৫/২ রান

২০১১ আইপিএলে ৪৮তম ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিং ও কলকাতা নাইট রাইডার্স মুখোমুখি হয়েছিল। এই ম্যাচে সিএসকে দল টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। তবে ব্রেট লির বোলিংয়ের সামনে অসহায় হয়ে পড়েছিল সিএসকের দুই ওপেনার মাইকেল হাসিও মুরালি বিজয় এবং পাওয়ার প্লে-তে সুবিধা করতে পারেননি। এভাবে পাওয়ার প্লে-তে চেন্নাই দুটি উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৫ রান তোলে।

২) রাজস্থান রয়্যালস: ১৪/২ রান

২০০৯ সালে এই বিব্রতকর রেকর্ডটি রয়েছে রাজস্থান রয়্যালসের নামে। এছাড়াও এই একই ম্যাচে আইপিএলের ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন স্কোর করেছিল তারা। আসলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর ১৩৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে রাজস্থান রয়্যালস শুরুতেই ধাক্কা খায়। পাওয়ার প্লে-তে ২ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৪ রান তোলে। এরপর শেষ পর্যন্ত ১৫.১ ওভারে ৫৮ রানে অলআউট হয়ে যায় পুরো দল।

১) সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ: ১৪/৩ রান

Image

চলতি আইপিএল মরসুমের পঞ্চম ম্যাচ রাজস্থান রয়্যালসের বোলিংয়ের সামনে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের ব্যাটসম্যানরা পুরোপুরি অসহায় হয়ে পড়েছিল। রাজস্থান প্রথমে ব্যাট করে ২১১ রানের বিশাল স্কোরকার্ড খাড়া করে। জবাবে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের শুরুটা খুবই খারাপ হয় এবং দলটি পাওয়ার প্লেতে ৩ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৪ রান তোলে যা আইপিএলের ইতিহাসে যৌথভাবে সর্বনিম্ন স্কোর। এই ম্যাচে হায়দ্রাবাদের ব্যাটসম্যানরা তেমন কিছু করতে পারেননি এবং ৬১ রানে পরাজিত হয়।

error: Content is protected !!