ক্রিকেট

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আবারও আইপিএল খেলার সুযোগ পেয়েছেন এই ৩ জন খেলোয়াড়

বিশ্বের বৃহত্তম টি-টোয়েন্টি লিগ আইপিএল। এখন দর্শক সংখ্যা ও আয়ের দিক থেকেও এটি অনেক বড় স্পোর্টস লীগকেও হার মানায়। এই টুর্নামেন্টে অনেক তাবড় তাবড় খেলোয়াড় অংশ নিয়েছেন এবং কিছু তরুণ খেলোয়াড়ও এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বিশ্বের কাছে তাদের প্রতিভা দেখানোর সুযোগ পেয়েছেন। তবে এই লিগে এমনও কিছু খেলোয়াড় রয়েছেন যারা বিসিসিআই দ্বারা নিষিদ্ধ হওয়ার পরেও ফিরে এসেছেন।

এ পর্যন্ত আইপিএলে এমন তিনজন খেলোয়াড় যাদের বিসিসিআই কয়েকটি ম্যাচ বা কয়েক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল। তবে নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর তারা পুনরায় ফিরে এসেছেন এবং দলের হয়ে আরো ভালো পারফর্ম করেছেন। এই প্রতিবেদনে সেই তিন জন খেলোয়াড়ের সম্পর্কে বলা হয়েছে:

৩) রসিক সালাম:

জম্মু-কাশ্মীরের ফাস্ট বোলার রসিক সালাম ২০১৯ সালে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে আইপিএল খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন। যদিও তিনি অভিষেক ম্যাচে খুব একটা ভালো পারফর্ম করতে পারেননি বলে তাকে একাদশে পুনরায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। একই বছরে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ ত্রিদেশীয় সিরিজের আগের জাল সার্টিফিকেট জমা দেওয়ায় বিসিসিআই তাকে ২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল।

নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করার পরে, রসিক সালামকে ২০২২ আইপিএলে নিলামে কলকাতা নাইট রাইডার্স কিনে নেয়। চলতি মরসুমে তিনি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে তার প্রথম ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন। কেকেআরের এই ফাস্ট বোলার তার পুরনো দলের বিপক্ষে তিন ওভারে ১৮ রান খরচ করেন।

২) রবীন্দ্র জাদেজা:

বর্তমান চেন্নাই সুপার কিংস এর অধিনায়ক রবীন্দ্র জাদেজার ২০১০ সালে আইপিএল শুরুর ঠিক আগে তাকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছিল। রাজস্থান রয়্যালস দলে থাকাকালীন তিনি অন্য ফ্র্যাঞ্চাইজির কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেছিলেন বলে তার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ ওঠে।

যাই হোক ২০১১ আইপিএলে তিনি আবারও প্রত্যাবর্তন করেন এবং কোচি টাস্কার্স কেরালা ফ্র্যাঞ্চাইজি তাকে কিনে নেয়। এরপর ২০১২ সালে তিনি চেন্নাই সুপার কিংসের সবচেয়ে ব্যয়বহুল খেলোয়াড় হন। এরপর থেকে তিনি সিএসকে-র হয়েই খেলছেন। যদিও সিএসকে নিষিদ্ধ হওয়ার পর তিনি দু’বছরের জন্য গুজরাট লায়ন্সের হয়ে খেলেছেন। 

১) হরভজন সিং:

ভারতের অন্যতম সেরা স্পিনার হরভজন সিং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের প্রথম অধিনায়ক হয়েছিলেন। আইপিএলের উদ্বোধনী মরসুমে অর্থাৎ ২০০৮ সালে পাঞ্জাবের বিপক্ষে একটি ম্যাচ চলাকালীন ফাস্ট বোলার শ্রীশান্তকে চড় মারায় বিসিসিআই তাকে ১১ ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করে। এর পরের মরসুমে আবারও ফিরে আসেন তিনি। হরভজন সিং আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, চেন্নাই সুপার কিংস এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেছেন এবং মোট ১৫০টি উইকেট নিয়েছেন।

error: Content is protected !!