Connect with us

অজানা তথ্য

ভারতেই রয়েছে এক অজানা ‘বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল’, এখানে গেলে কেউ আর ফিরে আসে না

বারমুডা ট্রায়াঙ্গেলের কথা কমবেশি আমরা সকলেই জানি কিন্তু ভারত মায়ানমার সীমান্ত রয়েছে এমন একটি রহস্যময় হ্রদ যার কথা অনেকেই জানেন না। তবে কথিত আছে যে সেখানে কেউ একবার গেলে নাকি আর ফিরে আসে না, এমন ঘটনা বহুবার ঘটেছে। এই হ্রদে একের পর এক বিমান অদৃশ্য হয়ে গেছে বা যাত্রীদের কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় ভাষায় এই ফলের নাম ‘নউং ইয়াং’ বা ‘না ফেরার হ্রদ’। ভারত-মায়ানমার সীমান্ত এর পাংসাউ নামক এলাকায় এটি অবস্থিত। এর অবস্থান অরুণাচল প্রদেশের সীমান্তে। এই রহস্যময় হ্রদের দৈর্ঘ্য প্রায় ১.৮ কিলোমিটার এবং প্রস্তে ৪০০ মিটার চওড়া।


বলা হয়ে থাকে, এই হ্রদে যে একবার নামে সে আর ফিরে আসে না। উদাহরণস্বরূপ, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় এই হ্রদের উপর দিয়ে অনেক বিমান অবতরণ করেছিল তারপর সেই বিমানগুলোকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। এমনকি সেই সকল যাত্রীরাও নিখোঁজ হয়ে যায়।

এই হ্রদ থেকে কেন্দ্র করে সেখানকার স্থানীয়দের মুখ থেকে নানান অলৌকিক ঘটনার কথা জানা যায়। বহুকাল আগে এই হ্রদ থেকে নাকি একটি মাছ তুলে সেটি রান্না করেছিলেন পাশের গ্রামের এক বাসিন্দা। ওই গ্রামের একজন বৃদ্ধ ও তার মেয়েকে বাদ দিয়ে সকলেই ওই মাছ রান্না করে খেয়েছিলেন। তারপর দিন ওই গোটা গ্রামকেই ভাসিয়ে দিয়েছিল হ্রদ। এতে সকলেই মারা যায় কেবল ওই বৃদ্ধ ও তার মেয়ে ছাড়া।

এছাড়াও এক গবেষক দাবি করেছেন যে, ইজরাইলের প্রাচীন গ্রন্থে এই হ্রদের কথা উল্লেখ রয়েছে। ওই গ্রন্থেও নাকি হ্রদটিকে ভয়ানক ও রহস্যময় বলে উল্লেখ করা আছে। দক্ষিণ মেরুর আশ্চর্যজনক হ্রদটি একদিন পুরোপুরিভাবে অদৃশ্য হয়ে গিয়েছিল, ঠিক তেমনি ভারতের এই হ্রদটিও অবাক করে। 

Continue Reading
To Top