লাইফস্টাইলহেলথ টিপস

খুশখুশে কাশি দূর করার কয়েকটি কার্যকরী ঘরোয়া উপায়

শীতকাল আসতে না আসতেই নানারকম সর্দি কাশিজনিত রোগের সৃষ্টি হয়। এই সময় আবহাওয়া পরিবর্তন সময়ে খুসখুসে কাশির সমস্যায় ভুগতে হয় প্রায় সকলকেই। তখন আমাদের কোন কাজ করতে মন চায় না, এমন কি শারীরিক অসুস্থতা দেখা যায়। সেই সাথে গলা ব্যথা মাথা ধরা আরো নানান সমস্যা আমাদের নাজেহাল করে তোলে। তখন ডাক্তারের কাছে যাওয়া ছাড়া আর কোনো পথ থাকে না।

Image result for cold and cough

এই সময় আমরা বিভিন্ন ঘরোয়া টোটকা ব্যবহার করে থাকি তবু কমে না। তাই মনে রাখবেন খুসখুসে কাশি বেশ কিছুদিন থাকে তাও সপ্তাহ দুয়েক। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক ঘরোয়া পদ্ধতিতে কিভাবে খুশখুশে কাশি দূর করা সম্ভব।

১) মধু:- সর্দি কাশির ক্ষেত্রে মধু মহা ঔষধ হিসেবে কাজ করে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে কাশি দূর করার যে সমস্ত দামি দামি ওষুধ পাওয়া যায় তার থেকে ও মধু অনেক বেশি কার্যকরী। সুতরাং দৈনিক দুই চামচ মধু খেয়ে নিন এর ফলে আপনার খুসখুসে কাশির সাথে গলা ব্যথাও খুব দ্রুত সেরে যাবে।

২) ক্যান্ডি:- খুসখুসে কাশির সমস্যায় পড়লে ক্যান্ডি খুব উপকারে আসে। সর্দি কাশির কারণে যে শক্ত কফ নরম হয়ে বেরিয়ে যাবে শরীর থেকে।

আরও পড়ুনঃ টেনশন হলেই কি পেট মোচড় দিয়ে ওঠে? এটা কিন্তু ভালো লক্ষণ নয়

৩) হলুদ:- সেই প্রাচীনকাল থেকে হলুদ বহু রোগের নিরাময়ের ক্ষেত্রে কাজে লাগে এমনকি আজও এর ব্যবহার অপরিহার্য তাই খুসখুসে কাশির সমস্যায় ভুগলে আপনি হলুদের গুঁড়ার সাথে সামান্য মধু মিশিয়ে পান করুন খুব সহজে কাশি কমে যাবে।

৪) লেবু এবং আদার শরবত:- খুশখুশে কাশি দূর করার ক্ষেত্রে লেবু এবং আদার শরবত খুবই উপকারী। আদা যেমন গলা ব্যথা দূর করে ঠিক তেমন শ্লেষ্মাও দূর করতে সাহায্য করে। তাই এই শরবতটি একসাথে মিক্স করে খেয়ে নিন তাতে উপকার পাবেন।

আরও পড়ুনঃ প্রতিদিন সকালে এক গ্লাস গরম জল পানে রয়েছে অনেক উপকারিতা

৫) গার্গল করা:- খুসখুসে কাশির সমস্যায় পড়লে আমাদের মাথা যন্ত্রণা গা-হাত-পা ব্যথা অনুভূত হওয়া তার সাথে গলা ব্যথা শুরু হয়। এই ক্ষেত্রে উপকারে আসে গার্গল করলে। সামান্য লবণ নিয়ে হালকা কুসুম কুসুম গরম জলে গার্গল করলে খুবই দ্রুত কাশি কমে যায় এবং গলা ব্যথা দূর হয়ে যায়।

 

৬) তুলসী পাতা:- কাশির ক্ষেত্রে তুলসী পাতা হল মহৌষধ! তাই কয়েকটি তুলসীর পাতা চিবিয়ে রস খেয়ে নিতে পারলে কাশির কমানোর ক্ষেত্রে খুবই উপকারে আসে। এর সাথে সামান্য মধু মিশিয়ে খেতে পারলে আরো উপকার পাওয়া যায়। দিনে দুবার খান।

আরও পড়ুনঃ ত্বক ফেটে যাচ্ছে? জেনে নিন এই সমস্যার ৪টি ঘরোয়া উপায়

৭) বাসক পাতা:- তুলসী পাতার মতই বাসক পাতার রস জলে ফুটিয়ে সেবন করতে পারলে খুশখুশে কাশির নিরাময় হয়। এই রস সমেত জল দিনে ২-৩ বার পান করুন।

error: Content is protected !!