Connect with us

থানকুনি পাতায় রয়েছে বিশেষ উপাদান, যা কয়েকটি রোগকে সারিয়ে তোলে

Food

থানকুনি পাতায় রয়েছে বিশেষ উপাদান, যা কয়েকটি রোগকে সারিয়ে তোলে

থানকুনি গাছ একটি ভেষজ গুণসম্পন্ন উদ্ভিদ। গ্রামাঞ্চলে থানকুনি পাতার ব্যবহার আদি আমল থেকেই চলে আসছে। ছোট্ট প্রায় গোলাকৃতি পাতার মধ্যে রয়েছে ওষুধি সব গুণ। থানকুনি পাতার রস রোগ নিরাময়ে অতুলনীয়। এই পাতার রসে বহু রোগের উপশম হয়। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক

Image result for থানকুনি

১) চুল পড়ার হার কমে: বিভিন্ন কারণে চুল ঝরা শুরু করলে থানকুনি পাতার চুলের স্কাল্পে লাগালে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। গবেষণায় দেখা গেছে, থানকুনি পাতা চুলের গোড়া মজবুত করে এবং চুল ঝরা একেবারে কমিয়ে দেয়। সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন এটি মাথায় লাগিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন।

২) আমাশয় দূর হয়: নিয়মিত সকালে কয়েকটি থানকুনি পাতা চিবিয়ে খেলে অথবা খেলে আমাশয় রোগের চিরতরে দূর করে। এই পাতা চিনির সাথে মিশিয়েও খেতে পারেন। পেটের অন্যান্য সমস্যাগুলোও দূর হয়ে যায়।

৩) লিভারের স্বাস্থ্য ভালো রাখে: নিয়মিত সকালে থানকুনির রস শিশুদের খাওয়ালে লিভারের সকল সমস্যা দূর হয়ে যায় এবং লিভারে স্বাস্থ্য ভালো রাখে।

৪) হজম ক্ষমতা বৃদ্ধি ঘটে: এই পাতায় রয়েছে বিশেষ উপাদান যে কারণে খুব দ্রুত খাবার হজম হয়ে যায়। বিভিন্ন কারণে বদহজম বা গ্যাস অম্বল এর মতো সমস্যা দেখা দিলে এক চামচ থানকুনি পাতা খেলে তা দ্রুত সমাধান হয়ে যায়।

৫) জ্বরের প্রকোপ কমে: আবহাওয়া পরিবর্তনের সময় অনেকেই জ্বরে কাবু হয়ে পড়েন। আয়ুর্বেদ শাস্ত্র অনুসারে জ্বরের সময় এক চামচ থানকুনি পাতা খাওয়ালে তা অল্প সময়ের মধ্যেই জ্বরের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।

৬) ক্যান্সার প্রতিরোধ করে: গবেষণায় দেখা গিয়েছে থানকুনি পাতা ক্যান্সার প্রতিরোধে বিশেষভাবে সক্ষম অর্থাৎ ক্যান্সারের কোষগুলোকে মেরে ফেলে। এছাড়া মানুষের চামড়ায় বিভিন্ন রকমের ঘা ফোড়া দেখা দিলে তা দ্রুত সেরে যায়।

৭) পেটের রোগ নির্মূল করে: পেটের রোগ নির্মূল করতে থানকুনি পাতার কোন বিকল্প নেই। সকালবেলায় নিয়মিত থানকুনি পাতা খেলে পেটের বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। একইসঙ্গে পেটের মধ্যে সহজে ইনফেকশন হয় না।

Image result for belly pain

৮) খুশখুশে কাশি দূর করে: ২ চামচ থানকুনির রস সামান্য চিনিসহ খেলে সঙ্গে সঙ্গে খুসখুসে কাশিতে উপকার পাওয়া যায়। ১ সপ্তাহ খেলে পুরোপুরি ভালো হয়ে যাবে।

৯) ক্ষতস্থান সারিয়ে তোলে: পুরনো ক্ষত কোনও ওষুধেই না সারলে, থানকুনি পাতা সিদ্ধ করে তার জল লাগালে সেরে যায়। সদ্য ক্ষতে থানকুনি পাতা বেটে লাগালে, ক্ষত নিরাময় হয়ে যায়।

১০) যৌবন ধরে রাখে: বয়স বাড়লেও, যৌবন ধরে রেখে দেয় থানকুনি পাতার রস। প্রতিদিন একগ্লাস দুধে ৫-৬ চা চামচ থানকুনি পাতার রস মিশিয়ে খেলে, চেহারায় লাবণ্য চলে আসে। আত্মবিশ্বাসও বেড়ে যায়।

Continue Reading
Click to comment

Trending ..

To Top