ক্রিকেট

এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান পরপর ৭টি ODI ম্যাচে ০ রান করে লজ্জার রেকর্ড গড়েছেন

প্রতিনিয়ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিত্য নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হচ্ছে, কোনটা গর্বের আবার কোনোটা লজ্জাজনক! ক্রিকেট ইতিহাসের পাতায় এমন কতগুলি রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে যেগুলি সম্ভবত কারোর পক্ষে ভাঙ্গা সম্ভব নয়, একইভাবে কিছু রেকর্ড রয়েছে যেগুলো আবার কেউ ভাঙতে চাইবে না। তেমনই এক ভারতীয় ক্রিকেটারের নামে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে লজ্জার রেকর্ড রয়েছে, যিনি একটানা সাতটি ওয়ানডে ম্যাচে শূন্য রানে আউট হয়েছেন। 

এই প্রতিবেদনে, ভারতীয় অলরাউন্ডার অজিত আগারকারের কথা বলা হয়েছে, যিনি আন্তর্জাতিক ওয়ানডেতে টানা ৭টি ম্যাচে রানের খাতা খুলতে পারেননি। এই লজ্জার রেকর্ডের পাশাপাশি তিনি ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডেতে দ্রুততম হাফসেঞ্চুরি করার রেকর্ডও করেছেন। ২০০০ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একটি ওয়ানডে ম্যাচে মাত্র ২১ বলে হাফসেঞ্চুরি করেছিলেন। তবে সেই বছরই তার নামের সাথে জুড়ে যায় একটি লজ্জার রেকর্ড।

১৯৯৯ সালের শেষের দিকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে অজিত আগারকার রানের খাতা খুলতে পারেননি, প্রতিবারই শূন্য রানে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেছেন। এরপর ২০০০ সালের প্রথম দুটি ওয়ানডে ম্যাচেও রানের খাতা খুলতে ব্যর্থ হন। সুতরাং এইভাবে তিনি টানা ৭ বার শূন্য রান করে একটি লজ্জার রেকর্ড গড়েন।

ভারতীয় অলরাউন্ডার অজিত আগারকার ১৯৯৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক করেছিলেন। এরপর ২০১৩ সালে সমস্ত ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেন। যদিও ২০০৭ সালের পর থেকে তিনি আর ভারতীয় দলে ফিরতে পারেননি। দীর্ঘ অপেক্ষার পর ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা করেন। 

অজিত আগারকারের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারের পরিসংখ্যানের কথা বললে, তিনি ভারতের হয়ে ২৬ টেস্টে ৫৮টি উইকেট, ১৯১ ওয়ানডেতে ২৮৮টি উইকেট এবং ৪টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৩টি উইকেট নিয়েছেন। এছাড়াও তার উল্লেখযোগ্য ব্যাটিং পারফরম্যান্সের কথা বললে, লর্ডসের মাঠে তিনি তার একমাত্র টেস্ট সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন। এছাড়া ওয়ানডেতে তার সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত স্কোর ৯৫ রান।

error: Content is protected !!