Connect with us

বিক্রম ল্যান্ডার কিসে বাধা পড়েছে, তার ব্যাখ্যা দিলেন প্রথম চন্দ্রযান-এর ডিরেক্টর

News

বিক্রম ল্যান্ডার কিসে বাধা পড়েছে, তার ব্যাখ্যা দিলেন প্রথম চন্দ্রযান-এর ডিরেক্টর

গত ১০ দিন ধরে খবরের শিরোনামে রয়েছে ল্যান্ডার বিক্রম, এখনো পর্যন্ত ইসরোর বিজ্ঞানীরা বিক্রম এর সাথে কোনরকম যোগাযোগ করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত এই অভিযানটি কিভাবে ব্যর্থ হলো এই নিয়ে তো জল্পনা-কল্পনার শেষ নেই। কি এমন ছিল যা ল্যান্ডার বিক্রম অবতরণ করতে অসফল হয়? এর ব্যাখ্যা দিয়েছেন চন্দ্রযান ১ এর প্রথম ডিরেকটর মাইলস্বামী আন্নদুরাই। চলুন জেনে নেওয়া যাক তিনি কী ব্যাখ্যা দিলেন –

৭ সেপ্টেম্বর মধ্যরাত্রি, সকল ভারতবাসী বুকে আশা বেঁধে ছিল চন্দ্রযান ২ এর সাফল্য নিয়ে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা ব্যর্থ হয় ফলে বুক ভাঙ্গে গোটা দেশবাসীর, এমনকি সেখানে পৌঁছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সান্তনা বার্তা দেন এবং তাদের থেমে না থেকে আরো সাহস জোগানোর কথাগুলোই তিনি বক্তৃতার মাধ্যমে বলেছেন। যদিও ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ইসরোর হাতে আসে বিক্রমের থার্মাল চিত্র, তড়িঘড়ি করে সেই থেকে আজও সংযোগ স্থাপনের আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ভারতীয় বিজ্ঞানীরা। এমনকি নাসাও এই অভিযানকে এখনো সফল করার জন্য চেষ্টা করছে।

প্রথম চন্দ্রযান-এর ডিরেক্টর এই প্রসঙ্গে বলেছেন যে, চাঁদের পরিবেশ বিক্রম এর জন্য অনুকূল না, এই চন্দ্রপৃষ্ঠে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেছেন যে, ল্যান্ডারটির যেখানে অবতরণ করার কথা ছিল, তা যথেষ্ট অনুকূল ছিল না। এছাড়াও এমন কিছু যান্ত্রিক ত্রুটি থাকতে পারে যার ফলেই সংযোগ স্থাপন হওয়া ব্যর্থ হচ্ছে। তিনি আরো জানিয়েছেন যে, চন্দ্রযান-২ এর অরবিটার এবং ল্যান্ডারের মধ্যে সব সময় দ্বিমুখী যোগাযোগ থাকে তাই বিকল্প পদ্ধতিতে যোগাযোগ করা সম্ভব তবে তা ১০ থেকে ১৫ মিনিটের বেশি হবে না বলে জানিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ ল্যান্ডার বিক্রমের আয়ু মাত্র ১৪দিন কেনো, জানালেন বিজ্ঞানীরা

Image result for chandrayan

ইসরোর হাতে থার্মাল ছবি আসায়, তারা জানিয়েছেন যে অরবিটার চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণ করে এবং সেটি অক্ষত অবস্থায় রয়েছে। যদিও ধীরে ধীরে যোগাযোগের সম্ভাবনা কমছে কিন্তু তারা দাবি করেছেন অসম্ভব নয় যে যোগাযোগ করা যাবে না কারণ এই সিস্টেম এখন যদি পুরোপুরি কাজ করতে শুরু করে দেয় তাহলে এই মিশন সম্পূর্ণ সফল হবে বলে আশায় বুক বাঁধছেন বিজ্ঞানীরা। তবে এই কাজটি আগামী ২১ সেপ্টেম্বর এর মধ্যে যোগাযোগ না করতে পারলে চিরতরের জন্য এই ল্যান্ডারটির মৃত্যু ঘটবে। কারণ সেই সময় চাঁদের রাত শুরু হবে যার উষ্ণতা হবে মাইনাস ১৮৩ ডিগ্রী, যা কখনোই বিক্রম সহ্য করতে পারবেনা।

Continue Reading
Click to comment

Trending ..

To Top