Connect with us

Cricket

বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতীয় বোলারদের বেধড়ক পিটিয়েছিলেন কেন রিকি পন্টিং

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তখনো টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট আসেনি। তৎকালীন অডিআই ক্রিকেটে ৩০০ রানের গণ্ডি পার করতে পারলেই যথেষ্ট নিরাপদ মনে করা হতো। তবে বিশ্বকাপের মতো ফাইনাল ম্যাচে যদি সাড়ে তিনশো রানের গণ্ডি পার করা যায় তাহলে সোনায় সোহাগা।

Image result for Ricky Ponting

আর সেটাই হয়েছিল ২০০৩ সালের বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতীয় বোলারদের পিটিয়ে অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানরা ৩৫৯ রান তুলেছিল ২ উইকেট হারিয়ে। এরপর ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা বড় রান তাড়া করতে গিয়ে হুড়মুড়িয়ে আউট হয়ে ফিরে যায় এবং ১২৫ রানে ম্যাচ হেরে জোহানেসবার্গ থেকে চোখের জল নিয়ে বিদায় নেন শচীন-সৌরভরা।

রীতিমতো এই ম্যাচে রিকি পন্টিং শেষের দিকে ভারতীয় বোলার জাভাগাল শ্রীনাথ, আশিস নেহরা এবং জাহির খানদের বেধড়ক পিটিয়ে ছিলেন। আটটি ছক্কা এবং চারটি চারের সাহায্যে ১২১ বলে ১৪০* রানের অবিস্মরণীয় ইনিংস খেলেন। ৩৫ ওভারের পর তিনি আরো আক্রমণাত্মক হয়ে উঠেছিলেন এবং এই সময় তিনি ৫৬ বল খেলে ৯৬ রান তোলেন।

Image result for Ricky Ponting

পন্টিং সবাইকে বলেছিলেন যে ভারতের বিরুদ্ধে ৩০০ রান টার্গেট দেওয়া যথেষ্ট নয় তাই সকলকে প্রস্তুতি থাকতে হবে। এই ভেবেই তিনি আক্রমণাত্মক ব্যাটিং শুরু করেন। এরপরেও ডারেন লেম্যান, অ্যান্ড্রু সাইমন্ড এর মত বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ছিলেন। অপরপ্রান্তে শেষ পর্যন্ত টিকে ছিলেন ড্যামিয়েন মার্টিন (৮৮*)।

হঠাৎ এতদিন পর রিকি পন্টিং ওই ম্যাচে তিনি কেন বেধড়ক পিটিয়েছিলেন সেই কথাই তুলে ধরেছেন। গত ২৩শে মার্চ ২০০৩ ফাইনালের ১৭ বছর পূর্তিতে একটি টুইটও করেন পন্টিং। যে ব্যাট দিয়ে ভারতীয় বোলারদের বেধড়ক পিটিয়েছিলেন তার ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, ‘ঘরে থাকায় সবার হাতে যেহেতু সময় আছে, ভাবলাম ক্যারিয়ার থেকে যা যা রেখে দিয়েছি সেসব ধীরে ধীরে সবার সঙ্গে শেয়ার করে নিই। ২০০৩ বিশ্বকাপে এই ব্যাট দিয়েই খেলেছি।’

Continue Reading
Click to comment

Trending ..

To Top