ক্রিকেট

অঙ্কে ৩ পেয়েছিলেন কোহলি, এরপর দিয়েছিলেন জীবনের সবচেয়ে কঠিন পরীক্ষা

ব্যাট হাতে বাইশ গজে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি নামলে তার দুর্বলতা ধরতে পারা কোন বোলারের পক্ষে সম্ভব নয়, তিনি যে কোন মাঠে যে কোন সময়ে সাফল্য লাভ করেছেন কিন্তু তার দুর্বলতা ছিল অংকে! কারণ সেখানে তো ব্যাট ছিল না, তিনি অংক পরীক্ষায় একবার খুবই খারাপ রেজাল্ট করেছিলেন।

বিরাট কোহলি জানিয়েছেন যে, অন্য কোন বিষয় তার ভয় না থাকলেও অংক নিয়ে ছোট থেকেই একটা আতঙ্ক ছিল। স্কুলে পড়ার সময় অংকের বই দেখলেই নাকি তার মন মেজাজ বিগড়ে যেত আর খুব ভয় হত। ভারত অধিনায়ক এর ভাষায়, সত্যিই বুঝতে পারতাম না যে মানুষ কেন কঠিন অংক করতে যায়। জীবনে চলার পথে তো আমায় কখনো এই জটিল সূত্র প্রয়োগ করতে হয় নি। সে যাই হোক না কেন, একবার আমি অংক পরীক্ষায় ১০০ মধ্যে মাত্র ৩ পেয়েছিলাম কারণ এই বিষয়টির ব্যাপারে আমি সত্যি খুব কাঁচা ছিলাম।

তাহলে এখন প্রশ্ন হল বিরাট কোহলি অংকের হাত থেকে কিভাবে মুক্তি পেলেন? তিনি জানিয়েছেন যে দশম শ্রেণীর পরীক্ষার পর্যন্ত অপেক্ষা করছিলাম তারপর জানতাম যে অংক নিয়ে পড়াশোনা করার জন্য কোন বাধ্যতামূলক নেই সেই জন্য আমি নিজের পছন্দমত সাবজেক্ট পছন্দ করি। শুনলে অবাক হবেন ক্লাস টেনের অংক পরীক্ষায় পাশ করার জন্য আমি যেভাবে কঠোর পরিশ্রম করেছিলাম তাতে হয়তো ক্রিকেট খেলতে গিয়ে এতটা পরিশ্রম করিনি।

অবশেষে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি এটাও বলেছেন যে, সে পড়াশোনায় কখনোই ভালো ছাত্র ছিলেন না, তবে তার মধ্যে এক বিশেষ ক্ষমতা ছিল যে যেকোনো জিনিস কে খুব দ্রুত বুঝে নেওয়ার। হয়তো সেই দক্ষতায় তার জীবন যুদ্ধে সাফল্য এনেছে অংক বিষয়ে দুর্বল থাকা সত্ত্বেও। 

error: Content is protected !!