Connect with us

Lifestyle

সাধারণ ফ্লু না করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা বুঝবেন কীভাবে?

প্রকৃতি এখন গ্রীষ্মকাল, আর এই আবহাওয়া পরিবর্তনের মাঝে আমাদের শরীর আক্রান্ত হয় বিভিন্ন অসুখ-বিসুখে। দেখা দেয় সর্দি-কাশির মত সাধারণ ফ্লু। তবে এখন মানুষ যথেষ্ট দ্বিধাগ্রস্থ এর মধ্যে রয়েছে সাধারণ সর্দি-কাশি নিয়ে।

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস নামক আতঙ্কের কারণে এখন আর সর্দি-কাশি-জ্বরকে সাধারণ ফ্লু মনে করে নিশ্চিন্ত থাকা যায় না। বরং এসব উপসর্গ দেখা দিলেই করোনাভাইরাসের ভয় মনে বাসা বাঁধছে।

Image result for FLU

এই দুই ধরনের জ্বরের উপসর্গে এতটাই মিল যে, চিকিৎসকরাও হিমশিম খাচ্ছেন রোগ নির্ণয়ে। অনেক সময়ই দেরি হচ্ছে অসুখ ধরা পড়তেও। তাই রোগ নির্ণয়ের সুবিধার জন্যই জেনে রাখা ভালো, এই দুই ধরনের জ্বরের মিল এবং অমিলগুলো কী কী।

১। সাধারণ ফ্লু ও করোনা দুটিই ভাইরাসঘটিত অসুখ হলেও দুই অসুখের ভাইরাস সমগোত্রীয় নয়। সাধারণ ফ্লু ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের প্রকোপে হয় আর কোভিড-১৯ হয় করোনা গ্রুপের ভাইরাসের কারণে।

২। করোনাভাইরাস ছড়ায় অনেক দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। তুলনামূলকভাবে ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস অতি মন্থরগতিতে ছড়ায়।

৩। সাধারণ ফ্লুয়ের ক্ষেত্রে ভাইরাসের সংস্পর্শে আসার দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে অসুখ দেখা দেয়। করোনা ভাইরাসের সংস্পর্শে আসার এক থেকে দুই সপ্তাহের মধ্যে এই রোগের লক্ষণ দেখা দেয়।

Image result for fever

৪। সাধারণ ফ্লুয়ের ক্ষেত্রে জ্বর ১০৩ থেকে ১০৪ ডিগ্রি পর্যন্ত উঠে যেতে পারে। তবে ওষুধের কাজ শুরু হলে তা নামতেও শুরু করে। করোনার ক্ষেত্রে জ্বর প্রবল হলেও নামতে চায় না সহজে। তখন কোন ওষুধও কাজ করে না।

৫। সাধারণ ফ্লু বোঝার জন্য কোনো আলাদা করে পরীক্ষার দরকার পড়ে না। কিন্তু করোনা কিনা তা জানতে পলিমারেস চেন রিঅ্যাকশন বা পিসিআর পরীক্ষা করা হয়। 

৬। সাধারণ ফ্লুয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ভ্যাক্সিন রয়েছে। কিন্তু করোনারোধে কোনো প্রতিষেধকের আবিষ্কার এখনো পর্যন্ত হয়নি।

Continue Reading
Click to comment

Trending ..

To Top