পৌরাণিক

গরুড় পুরাণ: এই বিষয়গুলি মেনে চললে যে কেউ তার দুর্ভাগ্যকে সৌভাগ্যে রূপান্তরিত করতে পারে

গরুড় পুরাণ হিন্দু ধর্মের প্রধান ১৮টি পুরাণের মধ্যে একটি। গরুড় দেব হলেন ভগবান বিষ্ণুর বাহন, যে কারণে বিষ্ণুর উল্লেখ প্রধানত গরুড় পুরাণে পাওয়া যায়। একইভাবে গরুড় পুরাণেও জীবন-মৃত্যুর রহস্য সংকলিত রয়েছে। তাই মৃত্যুর পর আত্মার গতিবিধির জন্য গরুড় পুরাণের পাঠ করা হয়। 

এছাড়া গরুড় পুরাণে জ্ঞান-বিজ্ঞান, ধর্মনীতি ও সুখী জীবনের কিছু গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম-কানুনও এতে বলা হয়েছে। এবার জেনে নেওয়া যাক যে বিষয়গুলি অনুসরণ করে একজন মানুষ তার দুর্ভাগ্যকে সৌভাগ্যের পরিণত করতে পারেন।

আমরা প্রত্যেকেই আমাদের জীবনে অর্থ উপার্জনের জন্য অনেক চেষ্টা করি, তবে এই ক্ষেত্রে সবাই সফলতা পান না। এর কারণ অনেক সময়ই তাদের ভাগ্য অনুকূলে থাকেনা। এমতাবস্থায় তাদের উচিত কর্মের মাধ্যমে ভাগ্য তৈরি করা।

Palm Trees: Indoor Plant Care & Growing Guide

আপনি যদি জীবনে সফল হতে চান এবং মা লক্ষ্মীর আশীর্বাদ পেতে চান তাহলে সবার আগে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার যত্ন নিতে শিখুন। সমস্ত শাস্ত্রে উল্লেখ আছে, যে বাড়িতে পরিচ্ছন্নতা থাকে মা লক্ষ্মী স্বয়ং সেখানে বাস করেন।

পরিচ্ছন্নতা বলতে বোঝায় আপনার শরীরের এবং আপনি যেখানে থাকেন সেই স্থানের পরিছন্নতা। মা লক্ষী সুখ চাইলে সকাল থেকেই ঘর পরিষ্কার করা শুরু করুন। আপনার নিজের স্বাস্থ্যবিধির যত্ন নিন। নিয়মিত স্নান করে ভগবানের পূজা করুন। যে নিয়মিত এটি করে তার দুর্ভাগ্যও সৌভাগ্যে পরিণত হয়।

বিশ্বাস করা হয় যে বাড়িতে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার যত নেওয়া হয় না সেখানে মা লক্ষ্মী থাকেন না। বরং সেই জায়গায় নেতিবাচক প্রভাব পড়ে এবং বিভিন্ন রোগ বালাই দেখা দেয়। এমন কি ওই বাড়িতে আর্থিক সংকটও দেখা দিতে পারে।

গরুড় দেব প্রথমে ভগবান বিষ্ণুর কাছে থেকে পুরাণে বলা এই সব কথাগুলি শুনেছিলেন। তারপর কাশ্যপ ঋষিকে বলেন। গরুড় পুরাণে মোট ১৯ হাজার শ্লোক রয়েছে যার মধ্যে একটি শ্লোকে একজন ব্যক্তিকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার গুরুত্ব ব্যাখ্যা করা হয়েছে।

error: Content is protected !!