Connect with us

জেনে নিন যে সব উপায়ে আপনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন

Lifestyle

জেনে নিন যে সব উপায়ে আপনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন

সারা বিশ্ব এখন জর্জরিত হয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাসে, তবে কয়েকটি দেশ ইতিমধ্যেই এই মারণ ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। তারা কেবল সচেতনতাকে গুরুত্ব দিয়ে এই ভাইরাসকে ভিটে ছাড়া করেছে তাদের দেশ থেকে। তবে ভারতের মতো জনবহুল দেশে করোনাকে দূর করা সহজ না। প্রতিনিয়ত লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েই চলেছে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা।

এখন এই ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেতে কেবলমাত্র নিজেকে এবং আরো পারিপার্শ্বিক মানুষদের সচেতন করাই একমাত্র অবলম্বন হতে পারে বলে বারংবার জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

Coronavirus Questions Answered: What We Know About COVID-19 | Time

চলুন জেনে নেওয়া যাক, এই মারণ ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেতে আপনি কোন কোন সাবধানতা অবলম্বন করবেন-

১) বাথরুম:
এই সময়ে বাথরুম অত্যন্ত একটি ঝুঁকিপূর্ণ স্থান যেখানে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা খুবই বেশি থাকে। তাই বিশেষ করে বাথরুমের মেঝে, কলের হ্যান্ডেল, দরজার কড়া ইত্যাদি ভালো করে স্যানিটাইজার করে নিতে হবে এবং বাড়ির সকলকেই এই বিষয়ে সতর্ক করতে হবে।

২) হাঁচি কাশি:

Why You Keep Coughing After Getting Over Cold
বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন যে, একবার কাশি দেওয়া মানে বহু দূর-দূরান্ত পর্যন্ত কয়েক হাজার ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। যদিও বেশিরভাগ মাধ্যাকর্ষণ শক্তির ফলে মাটিতে পড়ে আর কিছু বাতাসের সঙ্গে মিশে যায়। তাই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি কাশি থেকে খুব সহজেই এই রোগ ছড়াতে পারে যা আমাদের নিঃশ্বাসের মাধ্যমে প্রবেশ করে। তাই সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স বজায় রাখা এবং সর্বদা মাস্ক ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক।

৩) কথা বলার মাধ্যমে:
চিকিৎসকদের মতে, কথা বলার মাধ্যমে শ্বাস-প্রশ্বাসের কণাগুলি দশগুণ বেশি ছড়ায়। গবেষণায় দেখা গেছে, মুখোমুখি বসে পাঁচ মিনিট কথা বললে তা ১ হাজার কণা দুজনের শরীরের মধ্যে আদান-প্রদান হয়। তাই এখন পাশাপাশি বসে কথোপকথনের সময় নয়। বেশিরভাগ অফিসে বা জনসমাগমের যোগ দেওয়া ব্যক্তিরাই বেশি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পড়ছেন।

আরও পড়ুনঃ ক্রমশ ভয়াবহ হচ্ছে করোনা পরিস্থিতি, মাস্ক নিয়ে নতুন নির্দেশিকা জারি করল WHO

এই ভাইরাসে লক্ষণজনিত ব্যক্তিদের ঘরে থাকা বাধ্যতামূলক। কেননা তার কথা বলা থেকে শুরু করে হাঁচি-কাশিতে ভাইরাসের নির্গমন ঘটবে। যার ফলে বহু লোকের সংক্রমিত হবার প্রবল আশঙ্কা থাকে।

Continue Reading
Click to comment

More in Lifestyle

Trending ..

To Top